ষষ্ঠী থেকে বৃষ্টি, হাওয়া অফিসের পূর্বাভাসে ভেস্তে যেতে বসেছে পুজোর পরিকল্পনা

ষষ্ঠী থেকে বৃষ্টি, হাওয়া অফিসের পূর্বাভাসে ভেস্তে যেতে বসেছে পুজোর পরিকল্পনা

 

 

 

উৎসবের আনন্দে গা ভাসানো বাঙালির জন্য মন ভাল করা কোনও পূর্বাভাসই দিতে পারল না আলিপুর আবহাওয়া দপ্তর। কারণ, হাওয়া অফিসের পূর্বাভাস অনুযায়ী তৃতীয়া থেকে বৃষ্টিতে ভিজতে পারে কলকাতা-সহ গোটা রাজ্য। নবমী এবং দশমীতে বাড়তে পারে বৃষ্টির পরিমাণ। তার ফলে পুজোয় প্যান্ডেলে প্যান্ডেলে ঘুরে প্রতিমা দর্শনের পরিকল্পনা ভেস্তে যেতে পারে বলেই আশঙ্কা আবহাওয়া দপ্তরের।

 

 

 

পুজোয় বৃষ্টি হবে নাকি হবে না, তাই ছিল লাখ টাকার প্রশ্ন। সাধারণত ১০ অক্টোবরের পরই এ রাজ্য থেকে বর্ষা বিদায় নেয়। তাই সেক্ষেত্রে বৃষ্টির সম্ভাবনা একেবারে উড়িয়ে দেওয়া যাচ্ছিল না। সেই আশঙ্কাই যেন সত্যি হল হাওয়া অফিসের পূর্বাভাসে। আবহাওয়া দপ্তরের পূর্বাভাস অনুযায়ী, বৃষ্টিতে ভেস্তে যেতে পারে পুজোর পরিকল্পনা। আবহবিদ গণেশ কুমার দাস বলেন, “তৃতীয়া থেকে পঞ্চমী পর্যন্ত রাজ্যে হালকা বৃষ্টির সম্ভাবনা রয়েছে। ষষ্ঠী, সপ্তমী, অষ্টমীতে বিক্ষিপ্ত বৃষ্টিতে ভিজতে পারে কলকাতা-সহ রাজ্যের বিভিন্ন প্রান্ত। নবমী এবং দশমীতে বৃষ্টির পরিমাণ আরও বাড়ার সম্ভাবনাও রয়েছে।” তবে আপাতত বঙ্গোপসাগরে কোনও নিম্নচাপ তৈরি হয়নি। তার ফলে পুজোর মাঝে বৃষ্টি হলে তার কারণ একমাত্র বর্ষা ছাড়া যে আর কিছুই নয়, তা স্পষ্ট জানিয়ে দিয়েছেন আবহবিদরা।

 

রাজ্যের ওপর মৌসুমী অক্ষরেখা সক্রিয় থাকার কারণেও বৃষ্টি হবে বলে জানিয়েছেন আবহাওয়া দফতর। আজ মহালয়ার দিন বজ্র‌বিদ্যুৎ সহ হালকা থেকে মাঝারি বৃষ্টির সম্ভাবনা রয়েছে। আবহাওয়া দফতরের তরফে জানানো হয়েছে, উত্তরবঙ্গের জেলায় বিক্ষিপ্ত বৃষ্টি হবে। হাল্কা থেকে মাঝারি বৃষ্টির পাশাপাশি তবে কোনও কোনও জায়গায় ভারী বৃষ্টিও হতে পারে বলে জানানো হয়েছে।

 

 

আগামী পাঁচদিন রাজ্যের নানা জেলায় বৃষ্টির সম্ভাবনা ৷ পুজোতেও রয়েছে বৃষ্টির সম্ভাবনা ৷ আবহাওয়া দফতর সূত্রে খবর, শক্তিশালী নিম্নচাপ অক্ষরেখা ৷ বাংলাদেশ সংলগ্ন জেলায় ভারী বৃষ্টির পূর্বাভাস রয়েছে ৷ কলকাতায় আজ, রবিবার দিনভর দফায়-দফায় বৃষ্টি হবে ৷ উত্তরপ্রদেশ থেকে ঝাড়খণ্ড হয়ে গাঙ্গেয় পশ্চিমবঙ্গের উপর যে নিম্নচাপ অক্ষরেখাটি রয়েছে তার গতিবিধির উপর বৃষ্টি অনেকটাই নির্ভর করবে বলে মনে করছে আবহাওয়া অফিস ।

 

পুজোয় ঘোরাফেরার ক্ষেত্রে গরমে আমবাঙালিকে নাজেহাল হবে কি না, সেই প্রশ্নেরও উত্তর খুঁজছেন অনেকেই। এর উত্তরেও যদিও সুখবর শোনাতে পারেনি আবহাওয়া দপ্তর। হাওয়া অফিসের পূর্বাভাস অনুযায়ী, আপাতত বাতাসে আর্দ্রতার পরিমাণ বেশি থাকায় ভ্যাপসা গরম থাকবেই। তাই সেজেগুজে প্যান্ডেলে প্যান্ডেলে ঘুরে ঠাকুর দেখার সময় গরম যে আপনার সঙ্গী হবে, সে বিষয়ে কোনও সন্দেহ নেই। আলিপুর আবহাওয়া দপ্তরের পূর্বাভাস শোনার পর থেকেই মনখারাপ আমবাঙালির। বছরের এই মাত্র কয়েকটা দিনের জন্য হাপিত্যেশ করে বসে থাকা বাঙালির কাছে পুজোয় বৃষ্টির পূর্বাভাসের মতো মনখারাপ করা কোনও খবর হতেই পারে না। তাই আপাতত বৃষ্টি হবে কিনা, সেই আশঙ্কাতেই দিন কাটছে মনমরা বাঙালির।

 

 

সৌজন্যে :- সংবাদ প্রতিদিন

 

Be the first to comment

Leave a Reply

Your email address will not be published.


*